পূর্নতা

Trending

Trending

Category

পূর্নতা

প্রিয় শীর্ষেন্দু,
কেমন আছো? তোমাকে লেখা শেষ চিঠিতে অনেক কিছুই লেখা হয়নি বলতে পারো সেই অপূর্নতাকে পূর্নতা দিতে এই চিঠিটা লেখা। আজকাল তোমার দিন কেমন কাটে আমার ভীষণ জানতে ইচ্ছে করে জানো তো! জানি কতোগুলো অপূর্নতা কখনোই পূর্নতা পায়না তাই হয়তো তোমায় চিঠি লেখার এই আকাংখাকে আমি কখনোই পুরোপুরি দমিয়ে দিতে পারবোনা৷

জানো তো আজকাল প্রায় প্রায় তোমার সেই পুরোনো মুখাবয়বটা আমার চোখের সামনে ভেসে ওঠে।
এককালে কি পাগল ছিলাম বলো তো?
গান জানা এক ভবঘুরের প্রেমে পরে আমিও কেমন হতচ্ছাড়া হয়ে গেছিলাম?
তুমিও দিব্যি বলেছিলে, " শোনো মেয়ে বাউলকে ভাল তো সবাই বাসে কজন তার সঙ্গীনী হতে পারে বলো? মাঝপথে হাত ছাড়ার চেয়ে তুমি বরং এখনই ছাড়ো?"
কি অদ্ভুত লাগে শুনতে সেই শীর্ষেন্দু আজ দুই ছেলের বাবা! ভাবা যায়?

গীটার বাজাও আজকাল? তোমার বউকে সোহাগ করে শোনাও সেই গানটা ওইযে,
" হয়তো তোমারই জন্য হয়েছি আমি যে বন্য, জানি তুমি অনন্য আশার হাত বাড়াই!"
নাকি গানটা তুলে রেখেছো পুরোনো সেই নবনীতার জন্য?

নবনীতাও আজকাল আর গান শোনেনা! তার এখন ভারী ব্যস্ততা। সকাল আটটায় মেয়ের স্কুল, নটায় বরের অফিস, এগারোটায় আসে কাজের মেয়েটা। তারপর রান্নাবান্না, স্কুল থেকে মেয়েকে আনা, দুপুরের খাওয়া দাওয়া শেষে আবার বিকেলে মেয়েকে পড়তে নিয়ে যাওয়া আর রাত কেটে যায় বোকাবাক্সের সিরিয়ালে!
দিব্যি বেঁচে আছি গো! কি ভাবছো ভাল আছি কিনা? কিহ জানি! বেঁচে থাকা আর ভালথাকা কে এক সংজ্ঞায় বাঁধা যায়না কেন বলো তো?

ভাল কথা মেয়ের এবার পাঁচ বছরে পড়লো নাম কি রেখেছি শুনবে? "লগ্ন"
অবাক হলে? প্রথম প্রেম কি রকম বেহায়া হয় বলো তো? প্রথম প্রেমে প্রেমের সংজ্ঞাটাই আমরা ঠিকঠাক জেনে উঠিনা অথচ দাগ ফেলে যায় সারাজীবনের জন্য! তুমি আমার প্রথম প্রেম ছিলে শীর্ষেন্দু!

প্রথম প্রেমের মতোন ছন্নছাড়া অনুভূতি কি এ তল্লাটে আর আছে বলো তো শীর্ষেন্দু?
অমন পাগলাটে নেশা আমাদের আজীবন কেমন ঘোরের ভেতর রাখে! বুড়ো বয়সেও মুখ উজ্জ্বল হয়ে যায় প্রেমিকের নাম এলে! কি অদ্ভুত মাদকতা!!
প্রথম প্রেম আমাদের কেমন পাগল করে দেয় তাইনা? প্রথম প্রেমে কষ্ট পেয়ে হাত কাটেনি এমন একটা ছেলেমেয়ে খুঁজে পাবে বলো তো শীর্ষেন্দু?

মজার কথা শোনো সেদিন আমার মেয়ে আমার হাতের কাটা দাগ টা দেখে বললো, "মামনি তোমার এখানে কি হয়েছিলো!" তুমি জানোনা আমি কি লজ্জায় না পরে গেছিলাম ওর বাবা বাঁচিয়ে দিলো বললো হাত পুড়ে গেছিলো৷

লোকটা ভীষণ ভাল জানো তো। বেলাশেষে সিনেমাটায় বলেছিলো অভ্যাসই প্রেম এ অর্থে মানুষটার প্রেমে রোজ আমি বারবার পড়েছি হয়তো ভাল ও বেসেছি!
তবু প্রথম প্রেমের মতোন সর্বগ্রাসী আসলেই কিছু নেই! তবু আমি ওকে ভালবাসি! প্রথম প্রেম যতোই সর্বগ্রাসী হোক চিরস্থায়ী নয় ও আমার চিরস্থায়ী প্রেম শীর্ষেন্দু!
জানি এই চিঠিটাতেও আমার সবটা বলা সম্ভব না তবু আমার সর্বগ্রাসী প্রেমের কাছে আমার চিরস্থায়ী প্রেমকে হারতে দেবোনা বলেই আজ এই চিঠিটা লেখা।

এটাই তোমাকে লেখা আমার শেষ চিঠি!
শীর্ষেন্দু তোমায় আমি ভালবাসি কিনা এই প্রশ্নটা আজ ও আমার মাথার ভেতর তালগোল পাঁকিয়ে ফেলে ভালবাসা আর সম্মান মিলেমিশে একাকার হয়ে যায় সেখানে!

আর এজন্যই হয়তো তোমায় আমি পুরোটা ভুলতে পারিনা! তাই সে বৃথা চেষ্টা আমি আর করতেও চাইনা!
তুমি আমার ভেতরে জমে থাকা একদলা কষ্ট আর এক আঁজল অপূর্নতা! তোমাকে পাইনি বলেই হয়তো এতোটা মুগ্ধতা আজ ও ভেতরটায় রয়ে গেছে পেয়ে গেলে হয়তো এর সিকিখানিও থাকতো না। তাই তোমায় পাওয়ার ইচ্ছেটাকেও ইচ্ছে করেই অনেক আগেই বিসর্জন দিয়েছি। আজ বলতে পারো এই চিঠিটা তার এক জলন্ত দলিল।
তুমি না হয় আমার ভেতরটাতে এভাবে মুগ্ধতা হয়েই থেকো আজীবন। ভালো থেকো শীর্ষেন্দু পারলে নবনীতাকে মুক্ত করো তোমার থেকেও।

SHARE:

COMMENTS