বই মেলা

Trending

Trending

বই মেলা

আচ্ছা যখন ফেসবুক ছিলনা তখন বইমেলা হতোনা?
তখন কিভাবে বই বিক্রি হতো??

মানুষ বইমেলা গিয়ে বই হাতড়ে হাতড়ে বই কিনতো। যেটা ভাল লাগতো সেটা কিনতো। যত্ন নিয়ে পড়ে শেলফে রেখে দিতো।

আর এখন?
ঈদের সময় যেমন লাইভ আর অনলাইন ব্যবসাগুলো এফবি খুললেই হাজির হতো?
তেমন এখন ও এফবিতে ঢুকলেই বই বিক্রির রমরমা ব্যবসা!! ছোট লেখক থেকে বড় রাঘব বোয়াল লেখক কেউই বাদ নেই এ লিস্টে!

তার কয়েকটা নমুনা হলো

১.বইমেলা তে আজ কে কে আসছেন? আমি থাকছি এতো নম্বর স্টলে সাথে থাকছে আমার বই অমুক সবার আজকে চায়ের দাওয়াত থাকলো আশা করি দেখা হবে।

২. যে মানুষগুলো কাছের তারা অবশ্যই আমার কাছে সৌজন্য কপি চেয়ে আমাকে বিব্রত করবেনা বরং বইমেলা এসে নিজে দেখা করে আমার বইটা নিয়ে যাবে।

৩. অন্যদের কথা বলতে পারিনা তবে আমি একেবারেই আমার বই এর প্রচার থেকে বিরত আছি শুধু বই এর নামটা জানিয়ে রাখলাম ইচ্ছে হলে কিনবেন নয়তো না কোন জোর নেই।

৪. লাইভ নিয়ে হাজির হলাম আপনাদের মাঝে আমার বই ও কিছু কথা নিয়ে।

৫. আমার বই বইমেলা ছাড়াও আর যেখানে যেখানে পাবেন তার মধ্যে একটা হচ্ছে রকমারী। সেখানে ৩০% ছাড় সহ পাচ্ছেন আমারই নিজ হাতে অটোগ্রাফ তাই আর দেরি না করে এখনই অর্ডার করুন।

আচ্ছা আপনি না হয় আপনার লিস্টের মানুষগুলোর কাছে বই এর প্রচার করে তাদেরকে একপ্রকার ইমোশনালি ব্লাকমেইলের মতোন প্রচারণা দিয়েই অনেকটা ইনিয়ে বিনিয়ে পোস্ট দিয়ে যার অর্থই কিনা যারা আমার কাছের লোক তাদেরকে বলতে হবেনা তারা নিশ্চয় নিজে থেকেই আপনার বই কিনবে! আর তার ফলস্বরূপ কি হবে?
তারাও নিজেকে আপনার কাছের লোক প্রমাণ করতে বইমেলা ছুটে গিয়ে একটা সেলফি, অটোগ্রাফ আর পোস্ট সহ আপনার বই কিনবে। বই এর একটা পেজ কিংবা একটা কবিতাসহ মাইডে দেবে।

আচ্ছা তারা কি সত্যিই আপনার বই পড়বে? উহু পড়বেনা বিশ্বাস করুন ওইটাও শোপিস হিসেবেই শেলফে শোভা পাবে। তবু কিন্তু সে বই পড়তে ভালবাসে। এই বইমেলা তেই হয়তো অপরিচিত কারো বই সে হাতড়ে হাতড়ে কিনেছে এবং সেই বইটি সে শেষ অব্দি পড়েছে।

তাই কাউকে জোরপূর্বক বই না কিনিয়ে তার ইচ্ছেতে কিনতে দিন। এইসব প্রচার প্রচারণা বন্ধ করুন বইমেলা কে অন্যন্য ব্যাবসার মেলা ভাবাটা বন্ধ করুন। সাহিত্যকে ব্যবসার রসদ বানানো বন্ধ করুন।

SHARE:

COMMENTS